শৈলকুপায় নেয় লকডাউনের তৎপরতা

সরকারী নির্দেশনা মেনে সারা দেশে কঠোরভাবে মানা হচ্ছে লকডাউন সারাদেশের ন্যায় ঝিনাইদহ সদর রয়েছে কঠোর অবস্থানে। তবে ভিন্ন চিত্র চোখে পড়ে উপজেলা শহরগুলোতে

শুক্রবার সকাল থেকেই শহরের বিভিন্ন স্থানে পুলিশের পক্ষ থেকে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট এবং প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে তাদের তথ্য পরিচয় যাচাই এর মাধ্যমে। এছাড়াও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হচ্ছে। তবে ভিন্ন চিত্র ফুটে উঠেছে উপজেলা শহরগুলোতে। নানা অজুহাতে বাইরে বের হচ্ছে সাধারণ মানুষ। খোলা হচ্ছে দোকানপাট, বেড়েছে মানুষের চলাচল শহরের কবিরপুর, চৌরাস্তা মোড়, হলমার্কেট, হাজী মোড়সহ বিভিন্ন স্থানে মানুষের ভীড় চোখে পড়ে। মুদি দোকান থেকে শুরু করে পোশাকের দোকানও খুলতে দেখা গেছে। রিক্সা, ভ্যান, মোটর সাইকেল যোগে চলাচল করছে মানুষ।

সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সর্বাত্মক লকডাউন বাস্তবায়ন চোখে পড়নি পুলিশের ভূমিকা। ছিল না কোন চেকপোস্ট। সেই সাথে দেখা মেলেনি উপজেলা প্রশাসনের কোন তৎপরতা। ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনার কথা থাকলেও কোথাও তা চোখে পড়েনি।

এ অভিযান পরিচালনার মাঠে পাওয়া যায়নি উপজেলা প্রশাসনের কোন কর্মকর্তাকে। এ বিষয়ে শৈলকুপা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, অভিযান পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করছি কিছুক্ষণের মধ্যেই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত করবো। দোকান খোলার বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা মানুষকে সচেতন করার চেস্টা করছি, প্রয়োজনে জরিমানা করছি।